সোমবার, জুন ২৪, ২০২৪
Google search engine
Homeশীর্ষ সংবাদআসামির বিয়ে, পুলিশের খবর নাই

আসামির বিয়ে, পুলিশের খবর নাই

আধুনিক রিপোর্ট:

আসামির বিয়ে, তবুও পুলিশের খবর নাই। বরং ঢাকঢোল পিটিয়ে মহাসমারোহে চলছে বিয়ের আয়োজন। বরকে শুভেচ্ছা জানিয়ে নির্মাণ করা হয়েছে বিশাল তোরণ।

সোমবার দুপুরে যাত্রীর বিশাল বহর নিয়ে কনের বাড়ি যান বর। রোববার রাতে তার নিজ বাড়িতে হয় গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান। কথিত আছে, জালালাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে ম্যানেজ করে এ শুভ কাজটি সম্পন্ন করেছেন জসিম উদ্দিন নামের হবু বর।

এ বিয়ের বর জসিম উদ্দিন একটি মামলার আসামি। পুলিশের খাতায় পলাতক। তাকে খোঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। অথচ নিজ বাড়িতে জাঁকজমক করে বিয়ের আয়োজন করেছেন। এই ঘটনা ঘটেছে সিলেটের জালালাবাদ থানার মানসীনগর গ্রামে।

জানা যায়, গত ১৭ মে মানসীনগর গ্রামে একটি সালিশ বৈঠককে ঘিরে দুপক্ষের মারামারি হয়। এ মারামারির ঘটনায় একই গ্রামের সৈয়দ মিয়া বাদী হয়ে জালালাবাদ থানায় একটি মামলা করেন। মামলায় ২২ জনের নামোল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরও ১৫/২০ জনকে আসামি করা হয়। জসিম উদ্দিন এই মামলার ১৮ নম্বর আসামি। সোমবার তিনি বিয়ে করছেন।

এই মামলার বাদী সৈয়দ মিয়া অভিযোগ করে বলেন, মামলার আসামিরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করছে না। এরমধ্যে সোমবার এক আসামির বিয়ে করছেন। কাল থেকে তার বাড়িতে ঢাকঢোল বাজিয়ে বিয়ের আয়োজন চলছে। অন্যান্য আসামিরাও সেখানে জড়ো হয়েছেন। বিষয়টি একাধিকবার পুলিশকে জানালেও তারা কোন ব্যবস্থা নেয়নি।

তিনি বলেন, আসামির বিয়ের বিষয়টি গত রাতে আমি মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই লিটনকে জানাই। এরপর থেকেই তার ফোন বন্ধ পাই। সোমবার দুপুরে আসামি বর যাত্রী নিয়ে কনের বাড়ি চলে যাওয়ার পর তদন্তকারী কর্মকর্তা আমাকে ফোন দিয়ে জানান, তিনি আসামিকে ধরতে অভিযানে যাচ্ছেন।
তবে এমন অভিযোগ অস্বীকার করে জালালাবাদ থানার এসআই লিটন বলেন, মামলা দায়েরের পর আসামিদের ধরতে একাধিকবার অভিযান চালিয়েছি। কিন্তু তাদের পাইনি। এক আসামির বিয়ের খবর শুনে আজকেও অভিযানে গিয়ে তাকে পাইনি। রাতে আবার অভিযানে যাবো।

এ ব্যাপারে জালালাদ থানার ওসি মিজানুর রহমান আধুনিক কাগজকে বলেন, আসামির বিয়ের ব্যাপারে আমার কাছে কোনো তথ্য নেই। এলাকার লোকজন বলছে, পুলিশকে ম্যানেজ করে বিয়ে করছে আসামি- এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ক্ষেপে যান ওসি মিজান। তিনি বলেন, আপনি খোঁজ নেন, আমাকে ফোন দিচ্ছেন কেন?

প্রাসঙ্গিক সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

জনপ্রিয়

Recent Comments