শুক্রবার, মার্চ ১, ২০২৪
Google search engine
Homeবিনোদনজয় খুব ভাগ্যবান ছেলে শাকিবের মতো বাবা পেয়েছে: অপু বিশ্বাস

জয় খুব ভাগ্যবান ছেলে শাকিবের মতো বাবা পেয়েছে: অপু বিশ্বাস

বিনোদন প্রতিবেদক

বাংলা চকচ্চিত্রের ঢালিউড কুইন খ্যাত অপু বিশ্বাস। অভিনয় ক্যারিয়ারে অনেক ব্যবসাসফল সিনেমা উপহার দিয়েছেন। অধিকাংশ সিনেমায় ঢালিউড কিং শাকিবের খানের সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন। এ জুটির পর্দার রোমান্স বাস্তবেও রূপ নিয়েছিল। ভালোবেসে ঘর বেঁধেছিলেন তারা। এ সংসারে জয় নামে একটি পুত্রসন্তানও রয়েছে। যদিও ভেঙে গেছে সেই সংসার।

বর্তমানে শাকিব-অপু নিজেদের কাজ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে তাদের খুব একটা কথা বলতে দেখা যায় না। এবার ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে বিবাহিত জীবনের নানা বিষয়ে কথা বলেছেন অপু বিশ্বাস।

গত এক বছরে আপনার ও শাকিবের সমীকরণ বিভিন্ন সময়ে বদলেছে। সম্প্রতি একসঙ্গে আমেরিকা ঘুরে এসেছেন। এ প্রসঙ্গ উঠতেই অপু বিশ্বাস বলেন, ‘আমি চাই না, আমার সন্তান কোনো ভাঙা পরিবারে বেড়ে উঠুক। আমি আমার সন্তানকে নিয়ে ভীষণ সচেতন। যেকোনো সন্তানের কাছে পরিবার খুব গুরুত্বপূর্ণ। বাবা-মা হিসেবে সন্তানকে সুনিশ্চিত একটা জীবন দেওয়া আমাদের কর্তব্য। আমার মনে হয়, পরিবারের অশান্তিগুলো আমাদের মাঝেই থাকা উচিত; সন্তানকে যেন সেই অশান্তি না স্পর্শ করে। জয় এই জিনিসটা কখনো বুঝতেই পারে না। কারণ আমি, আমার শ্বশুর-শাশুড়ি, শাকিব সকলেই ভীষণ সচেতন। বাবা-মা কাজ করেন, ব্যস্ত বলে দূরত্ব রয়েছে— আমার ছেলের কাছে বিষয়টি এমন। কিন্তু ‘ব্রোকেন’ শব্দটার সঙ্গে ও পরিচিত নয়।

এ ক্ষেত্রে আপনার তাগিদই কী বেশি? জবাবে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘‘না, শুধু আমি নই। জয়ের বাবাও চান না। এদিক থেকে জয় খুব ভাগ্যবান। কারণ শাকিবের মতো বাবা পেয়েছে। আমার একার ইচ্ছায় তো কোনো কিছু সম্ভব নয়। ওর বাবা নিজের সন্তানের প্রতি খুব স্বচ্ছ। তাই আমার ছেলের কখনো ‘ব্রোকেন ফ্যামিলি’ মনে হয় না।

আপনি কখনো দ্বিতীয় বিয়ের কথা ভেবেছেন? এ প্রশ্নের উত্তরে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘না, কখনো ভাবিনি। দ্বিতীয় বিয়ের দরকারটা কি? বাংলাদেশে আমার এমন একটা জায়গা রয়েছে, যেখানে সকলে ভাবেন অপু যা-ই করবেন তার মধ্যে একটা বার্তা থাকবে। সেই দিক থেকে দর্শকের কাছে খুবই কৃতজ্ঞ। একটা মেয়ে, যার সন্তান আছে সে কেন দ্বিতীয় বিয়ে করবে? দ্বিতীয় বিয়েতে সে হয়তো স্বামী পাবে, সামাজিক পরিচিতি পাবে। কিন্তু সন্তান একজন সৎবাবা পাবে! সন্তানের প্রতি ওই বাবা সমান ভালোবাসা দেবেন না। তাই আমি মনে করি, দ্বিতীয় বিয়ে করবই না! তা হলে সন্তান তার নিজের বাবাকেই পাবে, অন্য কাউকে বাবা বলতে হবে না। তাই যেকোনো একজনকে আত্মত্যাগ করতেই হয়, তাতে ভুল কিছু নেই। মা হিসেবে আত্মত্যাগ করাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

এরপর প্রশ্ন করা হয় শাকিব খান তো দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন? জবাবে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘এ বিষয়ে কোনো ব্যাখ্যা দেব না।’ তাহলে কী সন্তানের জন্য আত্মত্যাগটা আপনি করছেন? জবাবে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘আমি একা কেন করব? যা-ই করেছি নিজের ইচ্ছায় করেছি; সব কিছুই যে উত্তর দিয়ে জানিয়ে দিতে হবে তেমনটা নয়। কিছু জিনিসের উত্তর সময় দেয়।

প্রাসঙ্গিক সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

জনপ্রিয়

Recent Comments